মেনু নির্বাচন করুন

বড়দরগাহ্ শাহ্ ইসমাঈল গাজী (রহঃ) ফাজিল মাদ্রাসা

  • সংক্ষিপ্ত বর্ণনা
  • প্রতিষ্ঠাকাল
  • ইতিহাস
  • প্রধান শিক্ষক/ অধ্যক্ষ
  • অন্যান্য শিক্ষকদের তালিকা
  • ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা (শ্রেণীভিত্তিক)
  • পাশের হার
  • বর্তমান পরিচালনা কমিটির তথ্য
  • বিগত ৫ বছরের সমাপনী/পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল
  • শিক্ষাবৃত্ত তথ্যসমুহ
  • অর্জন
  • ভবিষৎ পরিকল্পনা
  • ফটোগ্যালারী
  • যোগাযোগ
  • মেধাবী ছাত্রবৃন্দ

সংক্ষিপ্ত বণর্না প্রথম স্বকৃতির তারিখ- ০১/০১/১৯৮১ইং ভগন সংখ্যা-০৭টি জমির পরিমান- ১.৬৯ (একর)।

০১/০১/১৯৭৬

ইতিহাস বৃহত্তর রংপুর জেলার অন্তর্গত পীরগঞ্জ উপজেলাধীন ঢাকা-রংপুর মহাসড়ক সংলগ্ন প্রখ্যাত ওলীয়ে কামিল হযরত শাহ ইসমাইল গাজী (রঃ) এর মাজার অবস্থিত। এ সুবাদে দীর্ঘদিন থেকে অত্র এলাকার ধর্ম প্রাণ মুসলমান জনসাধারণ পবিত্র কুরআন ও হাদীস ভিত্তিক একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান অত্র এলাকার প্রতিষ্ঠা করার সংকল্প পোষণ করে আসছিলেন। যদ্বারা অত্র এলাকার সর্বসাধারণ মুসলমান জনগণের সন্তান সন্ততিগণ প্রকৃত ইসলামী শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে ঈমান আক্কিদা রক্ষা এবং পরিপুর্ণ ইসলামী জীবন পালন সহ সুনাগরিক হয়ে দেশ ও জাতি গঠনে বিশেষ অবদান রাখতে সক্ষম হয়। সে লক্ষ্যে বিগত ১৯৭৫ সালের শেষের দিকে অত্র এলাকার ধর্মপ্রাণ মুসলমানগণ সংগঠিত হয়ে এলাকার সুধীজন উক্ত মাজার কেন্দ্রিক একটি ইসলামী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান স্থাপন করার উদ্যোগ গ্রহণ করেন। সিদ্ধান্ত হয় যে, উল্লিখিত মাজার ফান্ড থেকে অর্থ নিয়ে একটি মাদ্রাসা প্রতিষ্টা করার। তবে এক্ষেত্রে সমস্যা দেখা দেয় উক্ত প্রতিষ্ঠান স্থাপনে জমি দানের ব্যাপারে। অবশেষে তৎকালিন অত্র এলাকার বিশিষ্ট সম্মনী ব্যক্তি মরহুম দছিম উদ্দিন সরকার উক্ত মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠার জন্য জমি দান করেন। অতঃপর তদানিন্তকালে অত্র ৩নং বড়দরগাহ্ ইউনিয়ন পরিষদের (রিলিফ) চেয়ারম্যান মরহুম জারজীজার রহমানের ঐকান্তিক উদ্যোগ প্রাথমিক পর্যায়ে উল্লিখিত বড়দরগাহ্ মাজার ফান্ড থেকে অর্থায়নে তদানিন্তন উক্ত মাজারের মুতোয়াল্লী মরহুম শাহ মেছের আলী ও অন্যান্য মুতোয়াল্লী এবং স্থানীয় সুধীজনদের সার্বিক সহযোগীতায় ১৯৭৬ সালে মাদ্রাসাটি উক্ত ওলীয়ে কামিল হয়রত শাহ ইসমাইল গাজী (রঃ) নামে প্রতিষ্ঠিত হয়। উল্লেখ্য যে, ১৯৭৬ সালে মাদ্রাসাটি স্থানীয় ভাবে প্রতিষ্ঠিত হলেও উহা বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক ০১/০১/১৯৮১ সাল থেকে দাখিল পর্যায়ে প্রথম মন্জুরী লাভ করে। অতঃপর ০১/০৭/১৯৮১ সাল থেকে প্রথম সরকারী অনুদান প্রাপ্ত হয়। পরবর্তীতে ০১/০৭/১৯৮৭ সাল থেকে আলিম স্তর এবং ০১/০৭/১৯৯৩ সাল থেকে ফাজিল স্তরে বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক মন্জুরী লাভ করে এবং ০১/০১/১৯৯৪ সাল থেকে ফাযিল পর্যায়ের সর্বপ্রথম এম,পি ও ভুক্ত হয়। গত ২০০৬ সালে বাংলাদেশ সরকার দেশের সকল ফাযিল ও কামিল বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া-এর অধীনে ফাযিল স্নাতক পর্যায়ে অধিভুক্তি লাভ করে।

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল
মোঃ আব্দুল গফুর মিয়া ০১৭৩৭৮৯৬৭০১ bangladeshpr1971@gmail.com

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল
এবিএম লুৎফর রহমান ০১৭১৯০০২৫৭১ bangladeshpr1971@gmail.com
মো: মোফাজ্জল হোসেন ০১৭২২০৭৯৫২৩ bangladeshpr1971@gmail.com

মোট ছাত্র/ছাত্রীর সংখ্যা ৪৬৪ জন ছাত্র/ছাত্রীর সংখ্যা শ্রেণী ভিত্তিক) জেন্ডার ৬ষ্ঠ শ্রেণী ৭ম শ্রেণী ৮ম শ্রেণী ৯ম শ্রেণী ১০ম শ্রেণী একাদশ দ্বাদশ স্নাতন মোট ৪৯ জন ৪৮ জন ৩৪ জন ২২ জন ১৫ জন ৩৯ জন ৩৫ জন ৮০ জন পাশের হার জেন্ডার ৬ষ্ঠ শ্রেণী ৭ম শ্রেণী ৮ম শ্রেণী ৯ম শ্রেণী ১০ম শ্রেণী একাদশ দ্বাদশ স্নাতন মোট ৯৫% ৯৮% ৯০% ১০০% ১০০% ৯৫% ৯০% ৯৩%

৯৮%

বতমান পরিচালনা কমিটির তথ্য কমিটির ধরনঃ নির্বাচিত গর্ভার্ণিং বডি মেয়াদ কাল

বিগত ৫ বছরের সমাপনী ৫ম শ্রেণী ২০১০ মোট পরীক্ষাথী সংখ্যা ৪৮ জন উত্তীর্ন ৪৭ জন, পাশের হার ৯৮% ৫ম শ্রেণী ২০১১ মোট পরীক্ষাথী সংখ্যা ৩৮ জন উত্তীর্ন ৩৮জন, পাশের হার ১০০% ৮ম শ্রেণী ২০১০ মোট পরীক্ষাথী সংখ্যা ১৬ জন উত্তীর্ন ১৬ জন, পাশের হার ১০০% ৮ম শ্রেণী ২০১১ মোট পরীক্ষাথী সংখ্যা ২২ জন উত্তীর্ন ২২ জন, পাশের হার ১০০% দাখিল ২০০৮ মোট পরীক্ষাথী সংখ্যা ২২ জন উত্তীর্ন ১৬ জন, পাশের হার ৭২.৭২% দাখিল ২০০৯ মোট পরীক্ষাথী সংখ্যা ২৭ জন উত্তীর্ন ২৪ জন, পাশের হার ৮৮.৮৮% দাখিল ২০১০ মোট পরীক্ষাথী সংখ্যা ২৮ জন উত্তীর্ন ২২ জন, পাশের হার ৭৮.৫৭% দাখিল ২০১১ মোট পরীক্ষাথী সংখ্যা ১৭ জন উত্তীর্ন ১৪ জন, পাশের হার ৮২.৩৫% দাখিল ২০১২ মোট পরীক্ষাথী সংখ্যা ২২ জন উত্তীর্ন ২২ জন, পাশের হার ১০০% আলিম ২০০৭ মোট পরীক্ষাথী সংখ্যা ১৭ জন উত্তীর্ন ১৬ জন, পাশের হার ৯৪.১১% আলিম ২০০৮ মোট পরীক্ষাথী সংখ্যা ৩৬ জন উত্তীর্ন ২৯ জন, পাশের হার ৮০.৫৫% আলিম ২০০৯ মোট পরীক্ষাথী সংখ্যা ৩১ জন উত্তীর্ন ২৪ জন, পাশের হার ৭৭.৪১% আলিম ২০১০ মোট পরীক্ষাথী সংখ্যা ৪৩ জন উত্তীর্ন ৩২ জন, পাশের হার ৭৪.৪১% আলিম ২০১১ মোট পরীক্ষাথী সংখ্যা ৪০ জন উত্তীর্ন ৩৭ জন, পাশের হার ৯২.০৫% ফাজিল ২০০৭ মোট পরীক্ষাথী সংখ্যা ১৪ জন উত্তীর্ন ১৪ জন, পাশের হার ১০০% ফাজিল ২০০৮ মোট পরীক্ষাথী সংখ্যা ১৫ জন উত্তীর্ন ০৭ জন, পাশের হার ৯৪.১১% ফাজিল ২০০৯ মোট পরীক্ষাথী সংখ্যা ৩৮ জন উত্তীর্ন ৩৩ জন, পাশের হার ৮৬.৮৪% ফাজিল ২০১০ মোট পরীক্ষাথী সংখ্যা ৪৪ জন উত্তীর্ন ৪৪ জন, পাশের হার ১০০%

শিক্ষা বৃত্তির তথ্য জেন্ডার ৬ষ্ঠ শ্রেণী ৭ম শ্রেণী ৮ম শ্রেণী ৯ম শ্রেণী ১০ম শ্রেণী একাদশ দ্বাদশ মোট ০৯ জন ১১ জন ০৭ জন ০৪ জন ০৪ জন ০৭ জন ০৬ জন

অর্জন বিগত ৫ বছেরের শ্রেণীতে পাবলিক পরীক্ষায় শিক্ষার্থীগণ জি,পি,এ ৫.০০/প্রথম বিভাগ অর্জনের যে গৌরব অর্জন করেন তার বিবরণ প্রদও হইল। শ্রেণী সন প্রাপ্ত জি,পি,এ৫.০০/প্রথম বিভাগ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীর সংখ্যা বৃত্তি প্রাপ্তির সংখ্যা মন্তব্য ৫ম ২০১০ ১ম বিভাগ ১৫ জন ৮ম ২০১০ × ২জন ১জন টেলেনপুলে এবং ১জন সাধারণ গ্রেডে। দাখিল ২০০৮ ২০১০ ২০১১ ২০১২ জি.পি.এ ৫.০০=২জন জি.পি.এ ৫.০০=৩জন জি.পি.এ ৫.০০=১জন জি.পি.এ ৫.০০=৬জন আলিম ২০১০ জি.পি.এ ৫.০০=৩জন ইহা ছাড়াও অত্র মাদ্রাসাটি জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ উৎযাপন অনুষ্ঠানে বিগত ১৯৯৫ ও ২০০৪ সালে অত্র উপজেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ মাদ্রাসা হওয়ার গৌরব অর্জন করে।

ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা ফাযিল স্নাতক অনার্স সহ কামিল স্নাতকোত্তর শ্রেণীতে উন্নীত করণ।

০১৭৩৭-৮৯৬৭০১



Share with :

Facebook Twitter